কলকাতায় গিয়ে জয়া ও নুসরাত সম্পর্কে যা বললেন তাসনিয়া

টালিউড পরিচালক অতনু ঘোষ পরিচালিত ‘আরো এক পৃথিবী’তে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। ছবি মুক্তির আগে আনন্দবাজার অনলাইনের মুখোমুখি হয়েছে ‘কারাগার’খ্যাত এই অভিনেত্রী।

ছবিতে নিজের চরিত্র প্রসঙ্গে তাসনিয়া বলেন, লেডিজ অ্যান্ড জেন্টেলম্যান’ ওয়েব সিরিজে আমার অভিনয় দেখে অতনুদা আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। প্রতীক্ষা (ছবিতে তাসনিয়ার চরিত্র)। ছোট থেকেই কঠিন পরিস্থিতিতে বড় হয়েছে। সময়ের অনেক আগেই পরিণত হতে হয় ওকে। খুবই অন্তর্মুখী চরিত্র। তাই সংলাপের তুলনায় আমাকে অভিব্যক্তির ওপর অনেক বেশি জোর দিতে হয়েছিল।

টালিউডের পছন্দের অভিনেতা বা অভিনেত্রী সম্পর্কে এই অভিনেত্রী বলেন, প্রসেনজিৎ, ঋতুপর্ণার ছবি দেখেছি। ঋত্বিক চক্রবর্তীর অভিনয় খুব পছন্দ। তবে উত্তমকুমার এবং সুচিত্রা সেনের জুটিটা আমার খুব পছন্দের। তাদের প্রায় সব ছবিই দেখেছি।

‘কারাগার’-এর পর টালিউড থেকে ছবির প্রস্তাব আসছে জানিয়ে তাসনিয়া বলেন, কিছু প্রস্তাব এসেছে। কিন্তু এখনো পছন্দ হয়নি। তা ছাড়া আমি সংখ্যার তুলনায় কাজের গুণগত মানের প্রতি বেশি সচেতন। মনের কথা শুনে চলি। এ রকমও হয়েছে যে, চিত্রনাট্যের শুধুমাত্র একটা লাইন পড়েই কাজে সম্মতি দিয়েছি।

ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন এসেছেন। আর নায়িকা মানেই তাকে নিয়ে বিতর্ক তৈরির সম্ভাবনা। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী বলেন, ব্যক্তিগত জীবনকে আমি প্রকাশ্যে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়ে আসি না। কাজের প্রতি সততা বজায় রাখার চেষ্টা করি। এখনও তো আমাকে নিয়ে কোনো বিতর্ক কানে আসেনি। আর ভবিষ্যতে কী হবে, সেটা নিয়ে আমি খুব একটা ভাবি না।

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান ও নুসরাত ফারিয়ার বিষয়েও তাসনিয়ার কাছে জানতে চাওয়া হয়। তাদের সঙ্গে তার আলাপ বা যোগাযেগ আছে কিনা?

এ প্রসঙ্গে নায়িকা বলেন, ইন্ডাস্ট্রিতে আমরা সবাই সহকর্মী। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা হয়, কথা হয়। কিন্তু সেই অর্থে ইন্ডাস্ট্রিতে কারো সঙ্গে আমার বন্ধুত্ব নেই।

‘আসলে আমি একটু নিজের মতো থাকতে পছন্দ করি। ব্যক্তিগত আর পেশাদার জীবনকে মিশতে দিই না। ব্যক্তিগত জীবনে ইন্ডাস্ট্রির কোনো বন্ধু নেই। আবার পেশাদার জীবনেও ব্যক্তিগত জীবনের কোনো বন্ধু নেই।’

সাক্ষাতকারের শেষ পর্যায়ে তাসনিয়ার কাছে জানতে চাওয়া হয়, তিনি সিঙ্গেল নাকি সম্পর্কে রয়েছেন।

এ বিষয়ে নায়িকার সোজা উত্তর- ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তিনি কিছু বলতে চান না। এ প্রশ্নের উত্তর তিনি একটু ধোঁয়াশার মধ্যেই রাখতে চান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *