কুসুমে র’ক্তের দাগ থাকা ডিম খেলে যা ঘটবে আপনার শরীরে !

ডিম ভাঙার পর অনেক ডিমের কুসুমে লাল রঙের বিন্দু বা রক্তের দাগের মতো দেখা যায়, অনেক সময় মাংসের টুকরোও দেখা যায়। এই ডিম খাওয়া যাবে কি না, এ বিষয় নানান জনের নানান মতামত রয়েছে।

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত কী, চলুন জেনে নেওয়া যাক-

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডিমের কুসুমে লাল বিন্দু বা রক্তের দাগ থাকলে তা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক নয়, যদি তা ভালো করে রান্না করা হয়।

ডিম্বনালি দিয়ে ডিম যাওয়ার সময় অনেক সময়ই তাতে মাংসের টুকরো বা রক্ত মিশে যায়। এতে শরীরে ক্ষতি করার মতো কিছু থাকে না।

তবে যদি ডিমের সাদা অংশটি কখনও গোলাপি, লাল বা সবুজ রঙের হয়, তাহলে সেই ডিম শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

বিশেষজ্ঞদের মতে, কোনো বিষাক্ত ব্যাকটেরিয়ার প্রভাবের ফলেই ডিমের রং বদলে যায়।

ডিম ভাঙার পর অনেক ডিমের কুসুমে লাল রঙের বিন্দু বা রক্তের দাগের মতো দেখা যায়, অনেক সময় মাংসের টুকরোও দেখা যায়। এই ডিম খাওয়া যাবে কি না, এ বিষয় নানান জনের নানান মতামত রয়েছে।

এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত কী, চলুন জেনে নেওয়া যাক-

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডিমের কুসুমে লাল বিন্দু বা রক্তের দাগ থাকলে তা শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক নয়, যদি তা ভালো করে রান্না করা হয়।

ডিম্বনালি দিয়ে ডিম যাওয়ার সময় অনেক সময়ই তাতে মাংসের টুকরো বা রক্ত মিশে যায়। এতে শরীরে ক্ষতি করার মতো কিছু থাকে না।

তবে যদি ডিমের সাদা অংশটি কখনও গোলাপি, লাল বা সবুজ রঙের হয়, তাহলে সেই ডিম শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

বিশেষজ্ঞদের মতে, কোনো বিষাক্ত ব্যাকটেরিয়ার প্রভাবের ফলেই ডিমের রং বদলে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *