স্বামীর উদ্দেশে ভালবাসা প্রকাশ করে যা লিখলেন অভিনেত্রী

নিন্দুকরা যা-ই বলুন না কেন, এই দম্পতির রসায়ন কিন্তু বরাবর আলাদা ভাবেই ধরা পড়েছে! রীতিমতো কাপল গোল সেট করছেন দক্ষিণী ছবির দুনিয়ার এই তারকা দম্পতি। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের পাতায় হামেশাই স্বামীর সঙ্গে ছবি পোস্ট করে থাকেন মহালক্ষ্মী। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে তামিল প্রযোজক রবীন্দ্র চন্দ্রশেখরনের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন দক্ষিণের সুন্দরী অভিনেত্রী মহালক্ষ্মী। আর সেই সময় থেকেই চর্চায় রয়েছেন এই দম্পতি। এমনকী বহু নেটিজেন তাঁদের ট্রোলও করেছেন।

তবে নিন্দুকরা যা-ই বলুন না কেন, এই দম্পতির রসায়ন কিন্তু বরাবর আলাদা ভাবেই ধরা পড়েছে! রীতিমতো কাপল গোল সেট করছেন দক্ষিণী ছবির দুনিয়ার এই তারকা দম্পতি। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের পাতায় হামেশাই স্বামীর সঙ্গে ছবি পোস্ট করে থাকেন মহালক্ষ্মী।

কিন্তু সাম্প্রতিক এক পোস্টের ক্যাপশন রীতিমতো নজর কেড়েছে। তিনি লিখেছেন, ‘জীবনটা সুন্দর এবং তুমিও ঠিক তা-ই’। এই লেখার সঙ্গে যে ছবিটি রয়েছে, সেই ছবিটিও বড়ই সুন্দর। তাতে দেখা যাচ্ছে, স্বামীর বাহুডোরে ধরা দিয়েছেন মহালক্ষ্মী। তাঁদের দু’জনের কালোয় ট্যুইনিং করা আউটফিটও নজর এড়ায় না। আর অভিনেত্রীর চোখে-মুখে যেন উপচে পড়ছে সুখের হাসি। এই পোস্ট অবশ্য ভরে গিয়েছে ভক্তদের ভালোবাসায়। তবে কিছু কিছু নেটিজেন আবার রবীন্দ্র চন্দ্রশেখরনকে ওজন কমানোর পরামর্শ দিতেও ছাড়েননি।

এটাই অবশ্য দক্ষিণী ওই অভিনেত্রীর প্রথম বিয়ে নয়। এর আগেও বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন অভিনেত্রী। প্রথম স্বামী অনিলের সঙ্গে তাঁর একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। সূত্রের খবর, বিয়ের পর থেকেই প্রথম স্বামী অনিলের সঙ্গে বেশ ঝামেলা হচ্ছিল মহালক্ষ্মীর। ফলে ২০১৯ সালেই তাঁদের পথ আলাদা হয়ে যায়। এর ঠিক তিন বছর পরেই ঐতিহ্যগত রীতি-নিয়ম মেনেই ঘনিষ্ঠ আত্মীয় এবং বন্ধুবান্ধবের উপস্থিতিতে শুভ কাজ সেরেছেন মহালক্ষ্মী এবং রবীন্দ্র চন্দ্রশেখরন। আর বারবার এই দম্পতির ইনস্টাগ্রাম পোস্ট থেকে এটা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে যে, তাঁরা একে অপরকে পেয়ে কতটা সুখী!

সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট অনুসারে, ‘ভিদিয়াম ভারাই কাঠিরু’ ছবির সময়ই আলাপ হয়েছিল মহালক্ষ্মী এবং রবীন্দ্র-র। এই ছবির সেটেই দুজনের মধ্যে সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। আর সেখান থেকেই সোজা ছাদনাতলায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত। বিয়ের পরেই অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন যে, রবীন্দ্রকে বিয়ে করার জন্য নিজেকে অনেক ভাগ্যবান বলে মনে করছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, দক্ষিণের টিভি ধারাবাহিকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন মহালক্ষ্মী। ‘অফিস’, ‘থিরু মঙ্গলম’, ‘কেলাদি কানমানি’, ‘ইয়ামিরুক্কা বায়ামেন’, ‘আরাসি’, ‘ভানি রানি’ এবং ‘চেল্লাময়’-এর মতো শো-য়ে কাজ করেছেন তিনি। আর রবীন্দ্র চন্দ্রশেখরনের প্রযোজনায় তৈরি হয়েছে বহু ছবিই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *