ছেলে কার কাছে থাকবে, যা জানালেন শরিফুল রাজ

স্বামী শরিফুল রাজের বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ তুলেছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। ইতোমধ্যে বিচ্ছেদের বিষয়েও নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি। অবশেষে নীরবতা ভেঙে মুখ খুলেছেন রাজ। তিনিও নিশ্চিত করেছেন, তাদের সম্পর্ক আর জোড়া লাগার সম্ভবনা নেই।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে পরী জানিয়েছিলেন, রাজকে আমার জীবন থেকে ছুটি দিয়ে দিলাম এবং নিজেকেও মুক্ত করলাম একটা অসুস্থ সম্পর্ক থেকে। জীবনে সুস্থ হয়ে বেঁচে থাকার থেকে জরুরি আর কিছুই নেই।

আরেকটি স্ট্যাটাসে নায়িকা জানিয়েছেন, রাজ্যের (ছেলে) দিকে তাকিয়ে সব ঠিক করার জন্য পড়ে থাকতেন। কিন্তু তাতে কি আসলেই তার বাচ্চা ভালো থাকবে!

পরীর ভাষ্যমতে- না, একটা অসুস্থ সম্পর্ক এত কাছে থেকে দেখে দেখে রাজ্য বড় হতে পারে না। তাই তিনি রাজ্য এবং রাজের মঙ্গলের জন্যই আলাদা হয়ে গেছেন।
রাজ-পরী
আক্ষেপ করে তিনি জানান, রাজ্য তার বাবা-মাকে একসঙ্গে নিয়ে বড় হতে পারল না, এর থেকে কষ্টের আর কি হতে পারে আমার কাছে!

পরীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে একটি গণমাধ্যমকে রাজ বলেন, ‘আমি কোনো সরকারি চাকরি করি না। আমাকে ছুটি দেওয়ার কিছু নেই। আমরা দ্রুতই আইনজীবীর সঙ্গে বসে অফিশিয়ালি সিদ্ধান্ত নেব। সন্তান কার কাছে থাকবে, এ ব্যাপারে আইনি পরামর্শ মেনে নেব।’

রাজের ভাষ্য, ঘরের বিষয় নিয়মিত ফেসবুকে চলে যাবে, এটা হতে পারে না! আমি অনেক সহ্য করেছি। এভাবে চলতে থাকলে জীবন চালানো অসম্ভব।

নায়কের আক্ষেপ, আমার বেডরুমের খবর সবার জানার কথা নয়। কিন্তু এখন সেটি ‘টক অব দ্য টাউন’-এ পরিণত হয়েছে। আমার বেডরুম নিয়ে সবাই মজা নিচ্ছে।

পরী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তাকে আমি সম্মান করি। সে আমার সন্তানের মা। তার প্রতি ভালোবাসা আছে বলেই কিছু বলতে চাই না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *