‘সরকারি চাকরিতে প্রতিবন্ধী কোটা বহাল রাখার চেষ্টা করা হবে’

সরকারি চাকরিতে প্রতিবন্ধী কোটা বহাল রাখার চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) সকালে প্রতিবন্ধি চাকরি মেলার উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ভবিষ্যতে চাকরি মেলার পাশাপাশি উদ্যোক্তা সম্মেলনও করা হবে; যেখানে প্রতিবন্ধী উদ্যোক্তাদের ৫০ হাজার থেকে দশ লাখ টাকার মূলধন সহায়তা করা হবে।

কর্মহীন কোটি মানুষের দেশে কাজের আশায় ছোটাছুটির চিত্র মেলে হরহামেশাই। আইএলও বলছে, দেশে কাজ না থাকা মানুষের সংখ্যা অন্তত ৩ কোটি। সব যোগ্যতা থাকার পরও কাজ মেলে না অনেকের। সেখানে প্রতিবন্ধীদের ছাড় দেয়ার মানুষ কই! সমাজে পিছিয়ে থাকা এইসব শারীরিক প্রতিবন্ধীদের এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যেই নবমবারের মতো চাকরি মেলার আয়োজন করেছে বিসিসি। এবারের প্রতিবন্ধী চাকরি মেলায় অংশ নিয়েছে ৫৪টি প্রতিষ্ঠান। ছোট-বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর কেউ কেউ কর্মী নিচ্ছেন মেলায় বসেই। কেউ আবার সংক্ষিপ্ত তালিকা করে রাখছেন ভবিষ্যতের জন্য।

একদিনের মেলায় প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, সারা বছর অনলাইনে চাকরি মেলা অব্যাহত থাকবে। প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহারে কর্মসংস্থান তৈরিতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। এছাড়া, ঢাকার বাইরে অবস্থিত সকল আইসিটি পার্কের প্রতিষ্ঠানে প্রতিবন্ধী কর্মী নিয়োগের আহ্বান জানান প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আগামী বছর থেকে চাকরি মেলার পাশাপাশি হয়তো আরেকটি দিন বৃদ্ধি করে উদ্যোক্তা মেলা করা যেতে পারে। আমরা একটা চ্যালেঞ্জ নিতে চাই। কেবল চাকরি প্রত্যাশীই নয়, আমাদের প্রতিবন্ধী ভাই-বোনেরাও যেন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে পারেন। আগামী বছর থেকে আমরা সেই সম্মেলন শুরু করবো। প্রয়োজনে তাদের ৫০ হাজার থেকে শুরু করে দশ লাখ টাকার মূলধন সহায়তা দেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *