প্রেম যে করতে পারবে সেই ভালো নায়িকা : সুবাহ

সম্প্রতি চিত্রনায়িকা প্রার্থনা ফারদিন দীঘির একটি স্ট্যাটাস ঘিরে তৈরি হয়েছে তুমুল তর্ক-বিতর্ক। দীঘির অভিযোগ- ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি রাজনীতির শিকার হচ্ছেন। যদিও সেখানে তিনি কারো নাম উল্লেখ করেননি, কিন্তু শোবিজে কানাঘুষা চলছে এটি তরুণ নির্মাতা রায়হান রাফিকে উদ্দেশ করেই বলেছেন দীঘি।

অবশেষে গতকাল বুধবার বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন সময়ের আলোচিত নির্মাতা রাফি। এরপরই বিষয়টি নিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছে শোবিজে। কথা বলতে বাধ্য হয়েছেন রাফি। কিন্তু তার সেই বক্তব্যও তৈরি করেছে নতুন বিতর্কের।

রাফি বলেন, ‘তার (দীঘির) উচিত টিকটক বাদ দিয়ে অভিনয়ে মনোযোগী হওয়া। ফিটনেসের দিকে মনোযোগী হওয়া। সে শুধু আমার সিনেমা থেকে বাদ হয়েছে এমনটা না, অন্যরা কেন তাকে সিনেমা থেকে বাদ দিল? নিশ্চয়ই তার ঘাটতি আছে।’

এদিকে রাফির এমন মন্তব্যে হতাশ নেটিজেনরা। একজন নির্মাতার অভিনেত্রীর প্রতি এমন মন্তব্যে ক্ষোভ ঝেড়েছেন অনেকেই। দীঘির পক্ষ নিয়ে কথা বলেছেন অনেকেই।

দীঘির হয়ে কথা বললেন চিত্রনায়িকা মডেল-অভিনেত্রী শাহ হুমায়রা সুবাহ। তিনি বলেছেন, ‘বাংলাদেশের রেকর্ড হয়ে থাকল! এইভাবে কোনদিন কোনো বড় ডিরেক্টর, কোনো নায়িকাকে প্রকাশ্যে তার ফিগার/বডি নিয়ে অপমান করতে দেখিনি। নিজে একটা পোড়া বেগুন, কিসের এত অহংকার রে ভাই! উনি এমনভাবে কথা বলেছে মনে হচ্ছে সে ইন্ডিয়ান নির্মাতা করণ জোহর বা সঞ্জয়লীলা বানসালি হয়ে গেছে!’

রাফিকে ইঙ্গিত দিয়ে সুবাহ আরও বলেন, ‘যে প্রেম করতে পারবে সেই ভালো নায়িকা, ভালো ফিগারের সুন্দরী নায়িকা! আর যে প্রেম করতে পারবে না, খাট কাপাতে পারবে না সে ভালো নায়িকা না- এটা কি ধরনের মিনিং!’

এই চিত্রনায়িকা আরও বলেছেন, ‘বর্তমান যুগে অনেক বড় বড় বলিউড এবং বাংলাদেশের নায়ক-নায়িকারা অনেকেই টিকটক করেন। তার মানে এই না যে, সে পচে গেছে বা একদম খারাপ হয়ে গেছে বা পর্নস্টার হয়ে গেছে (সরি টু সে)। এভাবে একটা নায়িকাকে অপমান করা হলো বিষয়টা খুব কষ্টের তারপরও সে (দীঘি) ছোট থেকেই অভিনেত্রী আবার স্টারকিড। তিনটা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার তার ঝুলিতে আছে। সে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী, তাকে অবশ্যই সম্মান দিয়ে কথা বলা উচিত ছিল তার (রাফির)।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *