ঘরে অর্নাস পড়ুয়া সন্তান, অপ্রাপ্তবয়স্ক ছাত্রীকে নিয়ে পালালেন মাদরাসা শিক্ষক

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে দাখিল পড়ুয়া ছাত্রীকে নিয়ে পালিয়েছেন মাদরাসা শিক্ষক নুরুন নবী মণ্ডল মিলন। অপ্রাপ্তবয়স্ক ছাত্রীকে নিয়ে পালানোর অভিযোগে উঠছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম। নুরুন নবী উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের জাংগালপাড়া গ্রামের আমতাজ উদ্দিনের ছেলে। তার সংসারে অনার্স পড়ুয়া ছেলেসহ তিন ছেলে রয়েছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, মো. নুরুন নবী মণ্ডল মিলন পার্শ্ববর্তী সাপমারা ইউনিয়নের ‘সাপমারা দাখিল মাদরাসায়’ সহকারী শিক্ষক পদে চাকরি করেন। শিক্ষকতার সুবাদে ওই প্রতিষ্ঠানের দাখিল শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলেন। একপর্যায়ে গত বৃহস্পতিবার ওই শিক্ষার্থীকে নিয়ে পালিয়ে যান শিক্ষক নুরুন নবী। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শিক্ষক নুরুন নবীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

মাদরাসার কয়েকজন শিক্ষক জানান, মেয়েটি এবারে দাখিল পরীক্ষার্থী ছিল। এমনিতেই বিভিন্ন কারণে অভিভাবকরা ছেলে-মেয়েদের স্কুলে পাঠাতে চান না। এরপর শিক্ষক দ্বারা যদি এমন ঘটনা ঘটে তাহলে একজনের কারণে পুরো শিক্ষক সমাজকে হেয় হতে হয়। বিষয়টি নিয়ে আমরাও লজ্জিত এবং বিব্রত।

মাদরাসা সুপার রফিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আগে কেউ বুঝে নেই। বৃহস্পতিবার ওই শিক্ষক মাদরাসায় না আসায় বিষয়টি জানাজানি হয়। এরপর আমরাও জেনেছি। নিয়ম অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শাহ আলম পারভেজ জানান, এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠান প্রধানকে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *