অসুস্থ শাশুড়ির খেয়াল রাখে না স্ত্রীরা, একসঙ্গে তিন স্ত্রীকে ডিভোর্স দিলেন তিন ভাই!

এবার অসুস্থ শাশুড়ির দেখাশোনা করেন না। এমনকি, নিজেদের কাজও করেন না। এই অভিযোগে কয়েক মিনিটের ব্যবধানে তিন স্ত্রীর সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক ছিন্ন করলেন তিন ভাই। ঘটনাটি ঘটেছে আলজেরিয়ায়। সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, তিন ভাই তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদের একটাই কারণ বলে জানিয়েছেন। তাঁদের স্ত্রীরা অসুস্থ শাশুড়িকে অবহেলা করতেন।

বৃদ্ধার স্নান, খাওয়া-দাওয়া— কোনও কিছুর দিকেই স্ত্রীদের নজর ছিল না। এ নিয়ে অশান্তি হতই। কিন্তু তিন ভাই একত্রে বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন একটা ঘটনার প্রেক্ষিতে। কয়েক দিন আগে তিন ভাই একসঙ্গে কর্মক্ষেত্রে থেকে বাড়ি ফেরেন। সাধারণত যে সময়ে তাঁরা বাড়ি ফিরতেন, সে দিন তার আগেই চলে এসেছিলেন তাঁরা।

কিন্তু ঘরে ঢুকেই রেগে যান তিন ভাই। তাঁরা দেখেন, তাঁদের অসুস্থ মায়ের সেবা করছেন এক প্রতিবেশী। বাড়ির তিন বৌয়ের কেউই নেই। এর পর প্রতিবেশীর কাছে তাঁরা জানতে পারেন, প্রায় কোনও দিনই বৌয়েরা বাড়িতে থাকেন না। তখন হয় তিনি নয়তো বৃদ্ধার ছোট মেয়ে এসে মায়ের যত্নআত্তি করেন।

এ বিষয়ে তিন ভাই জানান, তাঁরা কাজের সূত্রে দিনের বেশির ভাগ সময় বাইরে থাকেন। তাঁদের বিবাহিতা বোন সপ্তাহে দু’ তিন দিন করে তাঁদের বাড়িতে আসেন। মায়ের দেখাশোনা করেন। নিজের হাতে স্নান-খাওয়া করিয়ে দেন মাকে।

অন্যদিকে, বোনের স্বামী ক্যানসার আক্রান্ত। তা সত্ত্বেও মায়ের জন্য সময় বের করে ছুটে আসেন বোন। কিন্তু কয়েক দিন ধরে বোনের স্বামী অসুস্থ বলে তিনি আনর মায়ের কাছে আসতে পারছেন না। তাই স্ত্রীদের মায়ের খেয়াল রাখার কথা বলেছিলেন তিন জন। কিন্তু কেউ সেই কথা রাখেননি। তাই পর পর তিন ভাই তাঁদের তিন স্ত্রীকে ‘ডিভোর্স’ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *