চলতি মাসে শুরু হবে দেশের ১ম পাতাল রেল নির্মাণকাজ

চলতি মাসের শেষে দেশের প্রথম পাতাল রেলের কাজ শুরু হবে। সম্পূর্ণ সাড়ে ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এ রুট নির্মাণ হবে মাটির তল দিয়ে, থাকবে ১২টি স্টেশন। এ রুটের নতুন বাজার স্টেশনে হবে মেট্রো হাব। এখানে এমআরটি লাইন-৫ এর সঙ্গে এ রূটের আন্তঃসংযোগ থাকবে।

পাতাল মেট্রোরেল ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট লাইন-১ (এমআরটি) এর নির্মাণকাজ আগামী ২৬ জানুয়ারি উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এরমধ্যে দিয়ে রাজধানী ঢাকায় দ্বিতীয় মেট্রোরেলের আনুষ্ঠানিক কর্মযজ্ঞ শুরু হচ্ছে।

কমলাপুর থেকে এয়ারপোর্ট ও পিতলগঞ্জ পর্যন্ত নতুন এ পথ তৈরি করতে যাচ্ছে ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)। এমআরটির লাইন ওয়ানের আওতায় কমলাপুর থেকে এয়ারপোর্টের তৃতীয় টার্মিনাল পর্যন্ত হবে এ রেলপথ।

বিমানবন্দর-কমলাপুর রূটটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে শুরু করে বিমানবন্দর টার্মিনাল ৩, খিলক্ষেত, যমুনা ফিউচার পার্ক, নতুন বাজার, উত্তর বাড্ডা, বাড্ডা, হাতিরঝিল, রামপুরা, মালিবাগ, রাজারবাগ হয়ে কমলাপুর যাবে।

ডিএমটিসিএল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দীক সংবাদমাধ্যমকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাতাল রেলের নির্মাণকাজ উদ্বোধন করবেন। এ বিষয়ে একটি পত্র সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে পাঠিয়েছি। যেকোনো দিন আমরা তারিখ পেয়ে যেতে পারি। সেভাবেই নির্মাণকাজ শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছি।

তিনি বলেন, মেট্রোরেল প্রকল্প পাতাল পথ তৈরির জন্য চারটি পয়েন্টে সুড়ঙ্গ করে বোরিং মেশিন প্রবেশ করানো হবে। দ্রুত কাজ শেষ করতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে অতিরিক্ত সুড়ঙ্গ পথ তৈরির মেশিন (বোরিং) রাখার নির্দেশনা দেওয়া হবে। এতে কোনো মেশিন নষ্ট হলেও কাজ থেমে থাকবে না।

প্রাথমিক পরিকল্পনা অনুসারে এমআরটি লাইন ওয়ানের কাজ ২০২৬ সালের মধ্যে শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *