উচ্ছ্বাসে ভাসল মেসির পরিবার, গান গাইলেন বাংলাতেও

বিশ্বকাপ জয়ের পর ‘সময় সংবাদে’ আনন্দের মুহূর্ত ভাগাভাগি করে নিয়েছেন লিওনেল মেসির ভাই রদ্রিগো মেসিসহ তার পরিবারের সদস্যরা। নাচেগানে তারা মাতিয়ে তোলেন পুরো স্টেডিয়াম পাড়া। গান গেয়েছেন বাংলাতেও।
বাংলাতে গান গাইলেন মেসির পরিবার
এর চাইতে আর কি-ই বা হতে পারে বিশ্বকাপের সৌন্দর্য। সব সম্মান আর সব উপলক্ষ সৃষ্টিকর্তা সাজিয়ে রেখেছিলেন একেবারে শেষ বেলায়, তা কি জানতেন লিওনেল মেসি? নাকি বিশ্ব ফুটবলকে দেড় দশক ধরে অপেক্ষায় রেখে বর্ণিল সমাপ্তি টানবেন বলেই এত ক্লাইমেক্স। ফুটবল মহারাজার কাছে মহামুকুট, আর্জেন্টিনার হয় ৩৬ বছরের অপেক্ষার অবসান।

রোববার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে পেনাল্টি শুটআউটে ফ্রান্সকে ৪-২ গোলে হারিয়ে শিরোপা পুনরুদ্ধার করেছে আর্জেন্টিনা। নির্ধারিত আর অতিরিক্ত সময়ের খেলা ৩-৩ ব্যবধানে সমতায় ছিল। পরে পেনাল্টি শুটআউটে জয় তুলে নেয় আলবিসেলেস্তেরা।

লুসাইল স্টেডিয়ামে শেষ বাঁশি বাজতেই উল্লাসে মাতেন আর্জেন্টিনার ভক্ত ও সমর্থকরা। উচ্ছ্বাসে ভেসে গেছে মেসির পরিবারও। লিওর তিন ছেলে থিয়াগো, সিরো আর মাতেওর সঙ্গে পুরো পরিবার ফ্রেম বন্দি হয় সময় সংবাদের ক্যামেরায়।

গণমাধ্যমকর্মীদের দেখে তারা ‘বাংলাদেশ’ ’বাংলাদেশ’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরার সামনে মেসির পরিবারের সদস্যরা নেচেগেয়ে উঠেন। ভামোস আর্জেন্টিনা বলে গান গাইতে গিয়ে ‘বাংলাদেশ বাংলাদেশ’ বলে উচ্ছ্বাস করতে থাকেন তারা।

মেসির গর্বিত মা সিলিয়া মারিয়া কথা বলেছেন সময় সংবাদে। আলবিসেলেস্তেদের অকুণ্ঠ সমর্থন দেয়ায় বিশেষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশের সমর্থকদের। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে আর্জেন্টিনার অনেক সমর্থক আছে বলে জেনেছি। তারা মেসিকে খুব ভালোবাসে। মেসির প্রতি তাদের এমন ভালোবাসা অব্যাহত থাকুক। বাংলাদেশিদের আমিও ভালোবাসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *