তিন কোটি ২৪ লাখ টাকায় সুন্দরবনের বাঘ গণনা শুরু

সুন্দনবনে বাঘ গণনা শুরু করেছে বন বিভাগ। ‘বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্পের’ আওতায় তিন কোটি ২৪ লাখ ৩৬ হাজার টাকায় সুন্দরবনের বাঘ গণনা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) সকালে সুন্দরবনে পশ্চিম বন বিভাগের খুলনা রেঞ্জের কালাবগি ফরেস্ট স্টেশনের আওতাধীন এলাকায় এ কার্যক্রম শুরু হয়।

বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বাঘের হালনাগাদ তথ্য সংগ্রহ ও সুন্দরবনের বাঘ সংরক্ষণের জন্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় গত ২৩ মার্চ ‘সুন্দরবনের বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্প’ শীর্ষক প্রকল্পের প্রশাসনিক অনুমোদন দেয়। প্রকল্পটির মোট ব্যয় ৩৫ কোটি ৯৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা। এর মধ্যে শুধুমাত্র বাঘ শুমারি খাতে ব্যয় ধরা হয় ৩ কোটি ২১ লাখ টাকা।প্রকল্পটির মেয়াদ চলতি বছরের এপ্রিল থেকে ২০২৫ সালের জুন পর্যন্ত।

সুন্দরবন পশ্চিম বিভাগের বন কর্মকর্তা (ডিএফও) ও বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্পের প্রজেক্ট ডিরেক্টর (পিডি) ড. আবু নাসের মোহসিন হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে গণনা শুরু হয়েছে। আমাদের একটি দল বনে নদী-খাল জরিপের কাজ শুরু করেছে। এছাড়া আগামী ১ জানুয়ারি থেকে ক্যামেরা বসানো শুরু হবে। সুন্দরবনের প্রায় ৮০০টি গ্রিডে ক্যামেরা বসিয়ে বাঘসহ অন্যান্য প্রাণীর ছবি তোলা হবে। পরে তা প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্লেষণ করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী তিন মাস এই ধরনের জরিপ ও ক্যামেরা ট্র্যাপিং চলবে। পরবর্তীতে ২০২৩ সালের নভেম্বরে আবারও একইভাবে জরিপ ও ক্যামেরা ট্র্যাপিং করা হবে। ২০২৪ সালের মার্চ মাসের দিকে আমরা এর ফলাফল জানাতে পারবো।’

এ প্রকল্পের সংরক্ষণ অংশের মাধ্যমে বাঘের বংশবৃদ্ধির জন্য পুরুষ ও নারী বাঘকে কাছাকাছি রাখতে বাঘ হস্তান্তর, তাদের বিচরণ এলাকা জানার জন্য দুটি বাঘের স্যাটেলাইট সংযুক্তি ও মনিটরিং করা, বাঘের পরজীবীর সংক্রমণ ও অন্যান্য ব্যাধি এবং মাত্রা নির্ণয়, উপাত্ত সংগ্রহ, বিশ্লেষণ ও প্রতিবেদন, বাঘ ও বাঘের শিকারপ্রাণী ঘূর্ণিঝড়ের সময় আশ্রয়ের জন্য সুন্দরবনে ১২টি মাটির কিল্লা স্থাপন করার কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *