খেলাটা সাকিবের মুখস্ত, অনুশীলন না করাই ভালো: ফাহিম !

এখন পর্যন্ত মাঠের বাইরে কত শত ঘটনায় বিতর্ক আর আলোচনা সাকিব আল হাসানকে নিয়ে। অথচ মাঠে ফিরতে সবকিছুকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিতে জানেন টাইগার অলরাউন্ডার। চলতি বিপিএল ফরচুন বরিশালের হয়ে ব্যাট হাতে যেভাবে ছুটছেন তাতে বিস্মিত হতে হয়। বরিশাল কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম বলছেন অনুশীলন ছাড়াও সাকিব ভালো খেলেন কারণ খেলাটা তার মুখস্থ।

এদিকে অনুশীলনে সাকি কখনোই পুরোদমে সিরিয়াস থাকেন না। নানা সময়ে নিজেই জানিয়েছেন এই ফুরফুরে মেজাজে থাকাটাও তার ম্যাচ প্রস্তুতির অংশ। শুধু যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু অনুশীলন, এই নীতিতেই বিশ্বাসী তিনি। এবারের বিপিএল শুরু আগেই যেমন মাঠের বাইরের কান্ডে আলোচিত টাইগার পোস্টার বয়। বিপিএল নিয়ে সমালোচনার জেরে জল গড়িয়েছে বহু দূর। অথচ মাঠে নেমেই সিলেট স্টাইকার্সের বিপক্ষে ৬৭ রানের ঝকঝকে ইনিংস।

এবার বিপিএল চট্টগ্রামে ফিরতে ব্যাট হাতে আরও দুর্দান্ত সাকিব। অথচ দলের সাথে শুরুতে অনুশীলনেও যোগ দেননি। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে খেললেন ৮১ রানের অপরাজিত ইনিংস। মাঝে ৪ দিন খেলা ছি না বরিশালের। সাকিব দলকে রেখেই ঢাকায় ফেরেন, পারবারিক কাজে সময় দেন। রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচের আগে দলের সাথে যোগ দেন। অথচ পরদিন খেলে বসেন ৪৩ বলে ৮৯ রানের আরও একটি দুর্দান্ত ইনিংস।

ইফতিখার আহমেদকে সেঞ্চুরি করার সুযোগ না দিলে হয়তো নিজেই হাঁকাতে পারতেন টি-টোয়েন্টিতে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি। পরদিন ঢাকা ডমিনেটর্সের বিপক্ষে শুরু করেছিলেন যেন আগের ম্যাচ থেকেই। ১৭ বলে খেলন ৩০ রানের ইনিংস। এ দিন ইনিংস লম্বা না হলেও তার এই ক্যামিও ইনিংস কাজে লেগেছে বাকি ব্যাটারদে জন্য। অথচ ম্যাচের আগে ওয়ার্ম আপে মাত্র একটি বল করেছেন সাকিব।

১৩ রানের জয় পাওয়া ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাকিবকে নিয়ে কথা বলতে গিয়ে সে উদাহরণ টানেন কোচ নাজমুল আবেদী ফাহিম। প্রায় ২০০ ছুঁইছুঁই স্ট্রাইক রেটে ২৭৫ রান নিয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকে তালিকায় এখন সবার উপরে সাকিব। ফাহিমের মতে ১৫ বছর ধরে ক্রিকেট খেলার যে অভিজ্ঞতা সেটাই কাজে লাগাচ্ছেন সাকিব। টাইগার অলরাউন্ডারের খেলাটা মুখস্ত বলে মতে দেন ফরচুন বরিশাল কোচ।

এ সময় তিনি বলেন, ‘একজন খেলোয়াড় ১৫ বছর ধরে খেলে আসছে, খেলাটা তার কিন্তু মুখস্ত। আজকেও দেখেছি কিন্তু একটা বল করেছে ওয়ার্মআপ করার সময়, স্রেফ একটা বল। তারপর বুঝেছি আমি ঠিকাছি। ও শক্তি সঞ্চয় করে। ওর অ্যাওয়ারনেসটা দুর্দান্ত। খুব লক্ষ্য করে সব কিছু। ও বোধহয় এই সেই করে বেড়াচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ওর বোলিং চেঞ্জ, ফিল্ডিং চেঞ্জ। কোন ব্যাটার কখন যাবে স্পট অন কিন্তু। এটা কিন্তু এমনি এমনি হয় না। সবার শক্তির জায়গা। বিপক্ষ দলে কারা খেলছে। বামহাতি, ডানহাতি সব তার মুখস্ত কিন্তু। এসব কারণে সে ব্যতিক্রমী ক্রিকেটার। শুধু স্কিলের ব্যাপার না। স্কিল তো অনেকেরই আছে।’

অনুশীলনে বাড়তি সময় না দেওয়া সাকিবকে নিয়ে ব্যাখ্যা দিলেন নাজমুল আবেদীন ফাহিম। যেমনটা তিনি জানালেন, ‘টুর্নামেণন্ট শুরুর আগে এক রকম ছিল। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরু পর একজন খেলোয়াড় যখন পারফর্ম করে ওটাই তার অনুশীলন। আমি আজকেই সেটা নিয়ে আলাপ করছিলাম ওর সঙ্গে। ব্যাপারটা এমন একটা ৮০ রানের ইনিংস এরকম ইন্টেনসিটি নিয়ে খেলে। তারপর হঠাৎ করে গিয়ে ওরকম অনুশীলন করার চেয়ে না করাই ভালো। অনুশীলনের ইন্টেনসিটি মোটেও এরকম থাকবে না নেটে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *